কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালে দালাল চক্র ধরতে গিয়ে নানা অনিয়মের চিত্র ধরা পড়ল দুদকের চোখে !!

আজ মঙ্গলবার (২৩ জুলাই) দুপুরের দিকে কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালে অভিযান চালিয়েছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)। এ সময় পারভেজ নামের এক দালালকে আটক করে ২৮ দিনের কারাদণ্ড প্রদান করা হয়েছে। এদিকে অভিযান টের পেয়ে সটকে পড়ে হাসপাতালকে ঘিরে আশপাশে থাকা একাধিক দালাল চক্র।

দুর্নীতি দমন কমিশন কুষ্টিয়ার উপ-পরিচালক মোঃ জাকারিয়া হোসেন ও ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদফতর কুষ্টিয়া জেলা কার্যালয়ের সহকারী পরিচালক মোঃ সেলিমুজ্জামানের তত্ত্বাবধানে অভিযানটি পরিচালনা করা হয়।

দুর্নীতি দমন কমিশনের জেনারেল হাসপাতালের অভিযানে হাসপাতালের বিভিন্ন ওয়ার্ডে অব্যবস্থাপনাসহ নানা অনিয়মের চিত্র ধরা পড়ে। এর মধ্যে হাসপাতালে নোংরা পরিবেশ অপরিচ্ছন্নতা, জেনারেটরের থাকলেও সংযোগ না থাকায় জরুরি প্রয়োজনে অপারেশন না হওয়া এক্সরে মেশিন নষ্টসহ বেশকিছু অব্যবস্থাপনা পরিলক্ষিত হয়।

দুদক কর্মকর্তারা এসব অব্যবস্থাপনা ও অনিয়ম সমাধানে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষকে সাত দিনের সময় বেঁধে দিয়েছে বলেও সূত্র জানায়।

দুদকের উপ-পরিচালক মোঃ জাকারিয়া হোসেন বলেন, ‘হাসপাতালকে দালালমুক্ত করার উদ্দেশে পরিচালিত অভিযান টের পেয়ে চক্রটি পালিয়ে গেলেও এই হাসপাতালে দায়িত্বপ্রাপ্ত এক চিকিৎসকের স্ত্রীর মালিকানাধীন বেসরকারি প্রাইভেট ক্লিনিক নিউ ডি সানের এক দালালকে আটক করে ২৮ দিনের কারাদণ্ড প্রদান করা হয়।’

কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতাল সূত্রে জানা যায়, দীর্ঘদিন ধরে দালালদের উৎপাতে অতিষ্ঠ হয়ে উঠছিলেন রোগী ও তাদের স্বজনরা। প্রতিদিনই প্রতারিত হচ্ছিলেন বিভিন্ন গ্রাম থেকে আসা সহজ-সরল প্রকৃতির লোকজন। দালালদের খপ্পরে পড়ে অনেক রোগীর প্রাণহানির মতো ঘটনাও ঘটে। শহরের বিভিন্ন বেসরকারি ক্লিনিকের পৃষ্ঠপোষকতায় সক্রিয় এ দালাল চক্রটি।

Related Post