ভারতে পাচার হওয়া ৭ নারী ও দুই শিশু বেনাপোল ইমিগ্রেশনে হস্তান্তর

ভারতে পাচার হওয়া ৭ বাংলাদেশী নারী ও দুই শিশুকে বেনাপোল ইমিগ্রেশনে হস্তান্তর করেছেন ভারতীয় ইমিগ্রেশন পুলিশ। মঙ্গলবার সন্ধ্যা রাতে ভারতের পেট্রাপোল ইমিগ্রেশনের আনুষ্ঠানিকতা শেষে তাদের বেনাপোল ইমিগ্রেশনে হস্তান্তর করা হয়।

ফেরত আসা বাংলাদেশীরা হলেন ঠাকুরগাও জেলার মিম আক্তার (১৭), মনি আক্তার (১৯), রুবিনা খাতুন (১৮), রিনা বেগম (১৬), মুক্তা আক্তার (১৯), বরিশাল জেলার মুন্নি আক্তার (২২), ইতি খাতুন (১৮) ও দুই জন শিশু।

ফিরে আসা কিশোরীদের কাছ থেকে জানা গেছে, ভালো কাজের কথা বলে তাদের বিভিন্ন সীমান্ত পথে দালালেরা ভারতে পাচার করেছিলো দুই বছর আগে। এরপর সেদেশের পুলিশের কাছে আটক হয়ে তারা কলকাতার হাওড়া লিলুয়া হোম নামে একটি শেল্টার হোমে কাটায় দুই বছর।

বেনাপোল ইমিগ্রেশন ওসি আবুল বাশার বলেন, ‘এরা দালালদের খপ্পরে পড়ে ভারতে পাচার হয়ে দুই বছর পর দেশে ফেরত এসেছে। দুই দেশের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের ব্যবস্থাপনায় বিশেষ ট্রাভেল পারমিটের মাধ্যেমে তারা দেশে ফেরত আসে।’

যশোর রাইটস নামে একটি বেসরকারী এনজিও প্রতিষ্ঠান ফেরত আসাদের গ্রহন করেন। ওই এনজিওর যশোর জেলা কোয়ার্ডিনেটর তৌফিকুজ্জামান বলেন, ‘বেনাপোল ইমিগ্রেশন ও পোর্ট থানার কাজের আনুষ্ঠানিকতা শেষ করে যশোর রাইটসের অফিসে নেওয়া হবে। তাদের পরিবারের সঙ্গে যোগাযোগ করে তাদের হাতে তুলে দেওয়া হবে।’

Related Post